Thursday , July 7 2022
Home / রুপচর্চা / চুল পড়া রোধ করতে নিমপাতার ব্যবহার জানুন

চুল পড়া রোধ করতে নিমপাতার ব্যবহার জানুন

আশা করি সবাই ভাল আছেন। আজ আপনাদের মাঝে অরেকটি আর্টিকেল নিয়ে হাজির হলাম। আজ আপনাদের জানাবো চুল পড়া(Hair loss) রোধ করতে নিমপাতার ব্যবহার সম্পর্কে। নিম পাতা প্রায় সবার কাছে পরিচিত। বিশেষ করে গ্রামে নিম গাছ বেশি দেখা যায়। ভেষজ চিকিৎসায় নিম পাতার ব্যবহার বহুল। চুলের(Hair) জন্য ও নিম পাতার ব্যবহার রয়েছে। উজ্জ্বল(Bright),সুন্দর ও দৃষ্টিনন্দন চুলে পেতে নিম পাতার অবদান অপরিসীম। নিম পাতা ব্যবহার করলে চুলের খুশকি(Dandruff) দূর হয়, উকুন বংশ ধ্বংস হয় এবং চুল পড়া তেকে মুক্তি হয়।সুতরাং বলা যায় short hair, long hair যেকোন চুলের জন্য নিম পাতার ব্যবহার অদ্বিতীয়। চুলের যেকোন সমস্যা সমাধানে এটি কার্যকরী যার কোন রকম পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া নেই। যেহেতু বর্তমান তরুন তরুনীরা hair style এর ক্ষেত্রে অধিক সচেতন তাই তাদের জন্য আজ একটি অসাধারণ টিপস নিয়ে হাজির হয়েছি। চলুন দেখা যাক কীভাবে চুল পড়ার সমস্যা থেকে মুক্তি হয় করা যায়।চুল পড়া রোধ করতে নিমপাতার ব্যবহার

চুল পড়া
চুল পড়া রোধ করতে নিমপাতার ব্যবহার জানুন

চুল পড়া রোধ করতে নিমপাতার ব্যবহার জানুন

চুল পড়া রোধ করতে নিমপাতার ব্যবহার
প্রতি সপ্তাহে ১ দিন নিমপাতা ভালো করে বেটে চুলে লাগিয়ে ১ ঘণ্টারমত রাখুন। এবার ১ ঘন্টা পর ভালো করে ধুয়ে ফেলুন।দেখবেন চুল পড়া(Hair loss) কমার সাথে সাথে চুল নরম ও কোমল হবে।
মধু(Honey) ও নিমপাতার রস একত্রে মিশিয়ে সপ্তাহে কমপক্ষে ৩ দিন চুলের আগা থেকে গোড়া পর্যন্ত লাগান। এবার ২০ মিনিট অপেক্ষা করুন। তারপার শ্যাম্পু(Shampoo) করুন আর অধিকারী হোন ঝলমলে সুন্দর চুলের।
এক চা চামচ আমলকির রস, এক চা চামচ নিমপাতার রস, এক চা চামচ লেবুর রস, প্রয়োজন অনুযায়ী টকদই মিশিয়ে সপ্তাহে ২ দিন চুলে লাগিয়ে আধঘণ্টা অপেক্ষা করারপর শ্যাম্পু করুন। নিমপাতা শুধু চুল প-ড়া বন্ধ করে না একইসঙ্গে খুশকি ও উকুন দূর করে।

রোগ ব্যাধিতে পেঁপের উপকারিতা জেনে নিন

https://www.latestbangla.com/archives/15480

শোল মাছের ঝাল রেসিপি জেনে নিন এক ঝলকে?

https://www.latestbangla.com/archives/15476

চুল পড়া সমস্যা রোধ করবে ডিমের তেল জেনে নিন

https://www.latestbangla.com/archives/15473

অলসতা দূর করার উপায় জেনে নিন এক ঝলকে?

https://www.latestbangla.com/archives/15470

সুস্থ থাকুন, নিজেকে এবং পরিবারকে ভালোবাসুন। আমাদের লেখা আপনার কেমন লাগছে ও আপনার যদি কোনো প্রশ্ন থাকে তবে নিচে কমেন্ট করে জানান। আপনার বন্ধুদের কাছে পোস্টটি পৌঁছে দিতে দয়া করে শেয়ার করুন। পুরো পোস্টটি পড়ার জন্য আপনাকে অনেক ধন্যবাদ। প্রতিদিনের আপডেট পেতে আমাদের Facebook লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন।

শেয়ার করতে ভুলবেন না

Check Also

ইতিহাসের

৮ ডিসেম্বর: ইতিহাসের এই দিনে যা ঘটেছিল

সময় গড়ায় তার নিজস্ব নিয়মে, সমৃদ্ধ হয় মানবসভ্যতা। বিভিন্ন ঘটনা-দুর্ঘটনা, মনীষী কিংবা সাধারণের জন্ম-মৃত্যুর মাধ্যমে ...

Leave a Reply

Your email address will not be published.