Saturday , January 23 2021
Home / রুপচর্চা / ব্ল্যাকহেডস দূর করুন প্রাকৃতিক উপাদানের সাহায্যে

ব্ল্যাকহেডস দূর করুন প্রাকৃতিক উপাদানের সাহায্যে

প্রাকৃতিক উপাদানের সাহায্যে দূর করুন ব্ল্যাকহেডসI ব্ল্যাকহেডস নিয়ে অনেকেরই ঝামেলার অন্ত নেই। আমাদের শরীরে হরমোনের পরিবর্তনের জন্য মুখে ও নাকে ব্ল্যাক হেডস ওঠে অনেকেরই। সঠিক ভাবে রূপচর্চা করার জন্য পার্লারে ফেসিয়াল, ঘরে নানান রকম দামী পণ্য ব্যবহার ইত্যাদি কত কী করি আমরা। বিচ্ছিরি এই সমস্যা পুরোপুরি দূর করতে আজ জেনে নিন ৩টি দারুণ কৌশল। সাধারণ হলুদ আর মধুই দূর করবে আপনার মুখের কুৎসিত ব্ল্যাকহেডস I

প্রাকৃতিক উপাদানের সাহায্যে দূর করুন ব্ল্যাকহেডস
প্রাকৃতিক উপাদানের সাহায্যে দূর করুন ব্ল্যাকহেডস

প্রাকৃতিক উপাদানের সাহায্যে দূর করুন ব্ল্যাকহেডস

১)জাদুকরী হলুদের ব্যবহার
রূপচর্চায় হলুদের ব্যবহার অনেককাল পুরনো, ঘরোয়া চিকিৎসাতেও এর জুড়ি মেলা ভার। অসাধারণ গুণের এই হলুদ ব্ল্যাকহেডস দূর করতেও অনন্য। জেনে নিন হলুদের ব্যবহারে দুটি দারুণ রূপচর্চা।

-তাজা পুদিনা পাতার রস করে নিন। এর মাঝে গুঁড়ো হলুদ বা বাটা হলুদ দিয়ে পেস্ট তৈরি করে নিন। এই পেস্ট আক্রান্ত স্থান গুলোতে মাখুন। শুকিয়ে গেলে হালকা গরম পানি দিয়ে ধুয়ে নিন।
-হলুদ, চন্দনের গুঁড়ো এবং কাঁচা দুধ দিয়ে পেস্ট তৈরি করে নিন। এই পেস্ট আক্রান্ত স্থানে মাখিয়ে ১০ মিনিট রাখুন। পানি দিয়ে ধুয়ে নিন।

২) বহু গুণের মধু
মধুর মত অসাধারণ বস্তুটি রূপচর্চায় তো অপরিহার্য। জেনে নিন মধু দিয়ে কীভাবে ব্ল্যাকহেডস দূর করবেন।
-মুখে ও আক্রান্ত এলাকায় ভালো করে মধু মাখিয়ে রাখুন। শুকিয়ে গেলে ধুয়ে ফেলুন। এই মধু ত্বককে হাইড্রেট রাখে ও লোমকূপ সংকুচিত রাখে। ফলে ব্ল্যাক হেডস দূর হয়, নতুন ব্ল্যাকহেডস হয় না। সেই সাথে আপনি পান নরম ও কোমল ত্বক।

রেফারেন্স :https://rupchorcha24bd.blogspot.com

আরো কিছু পোস্ট আপনার জন্য প্রয়োজনে দেখতে পারেন

চটজলদি মেক-আপ

কোন ত্বকে কি রকম মেক-আপ ?

রাতে ঘুমানোর আগে পায়ের যত্ন

ডায়েট টিপস

মেহেদি ডিজাইন করতে চান ?

নিজেই করুন নিজের ফ্রেশিয়াল

ব্রণ কেন হয়?

টিনেজে ব্রণ ওঠার কারনগুলো কী ? দূরীকরণে কী করা যেতে পারে?

তরুন বয়সে ব্রণের কারন ? এই বয়সে ব্রণ দূরীকরণের উপায়গুলো কী কী?

আমাদের প্রদত্ত কনটেন্ট যদি আপনার ভালো লাগে, তাহলে শেয়ার করতে ভুলবেন না কিন্তু।প্রতিদিনের আপডেট পেতে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন।
ধন্যবাদ।

শেয়ার করতে ভুলবেন না

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *