Monday , July 4 2022
Home / যৌন জীবন / রাফ সেক্স বলতে কী বোঝায়? রাফ সেক্স করার নিয়ম

রাফ সেক্স বলতে কী বোঝায়? রাফ সেক্স করার নিয়ম

রাফ সেক্স” বিষয়টি আসলে একটু অন্যরকম। শুদ্ধ বাংলায় বলতে গেলে রাফ সেক্স হচ্ছে অমার্জিত যৌন আচরণ। তবে এতে ঠিক বিষয়টি পরিষ্কার হয় না। ব্যাখ্যা করে বললে বলতে হয়, অনেকে যেমন মিষ্টি ও রোমান্টিক যৌনমিলনকে প্রাধান্য দিয়ে থাকেন। তার ঠিক বিপরীতটাই হচ্ছে রাফ সেক্স।

রাফ সেক্স বলতে কী বোঝায় রাফ সেক্স  করার নিয়ম
রাফ সেক্স বলতে কী বোঝায়? রাফ সেক্স করার নিয়ম

রাফ সেক্স

রাফ সেক্স বলতে কী বোঝায়?
একটু উন্মাদনা, নতুন ধরের কিছু করা, তীব্র উত্তেজনা ও প্রবল যৌন ক্রিয়া, এটাই হচ্ছে রাফ সেক্সের মূল উপজীব্য। রাফ সেক্স আসলে কাউকে শেখানো যায় না, তবে হ্যাঁ কিছু ব্যাপার আছে যেগুলো রাফ সেক্সের অন্তর্ভুক্ত। বিশেষ সে যৌন আচরণগুলোই রাফ সেক্সের অন্তর্ভুক্ত এবং অনেক নারীই এইসব যৌন আচরণ বিশেষ ভাবে পছন্দ করে।
“রাফ সেক্স” বিষয়টি আসলে একটু অন্যরকম। শুদ্ধ বাংলায় বলতে গেলে রাফ সেক্স হচ্ছে অমার্জিত যৌন আচরণ। তবে এতে ঠিক বিষয়টি পরিষ্কার হয় না। ব্যাখ্যা করে বললে বলতে হয়, অনেকে যেমন মিষ্টি ও রোমান্টিক যৌনমিলনকে প্রাধান্য দিয়ে থাকেন। তার ঠিক বিপরীতটাই হচ্ছে রাফ সেক্স। একটু উন্মাদনা, নতুন ধরের কিছু করা, তীব্র উত্তেজনা ও প্রবল যৌন ক্রিয়া, এটাই হচ্ছে রাফ সেক্সের মূল উপজীব্য। রাফ সেক্স আসলে কাউকে শেখানো যায় না, তবে হ্যাঁ কিছু ব্যাপার আছে যেগুলো রাফ সেক্সের অন্তর্ভুক্ত। বিশেষ সে যৌন আচরণগুলোই রাফ সেক্সের অন্তর্ভুক্ত এবং অনেক নারীই এইসব যৌন আচরণ বিশেষ ভাবে পছন্দ করে।

পড়ুন ইসলামে দৃষ্টিতে যেসব সেক্স নিষিদ্ধ জেনে নিন !
১) রাফ সেক্স মানেই একদম ঝাঁপিয়ে পড়ে যৌন মিলন করা নয়। বরং যৌন আচরণে একটু বল প্রয়োগের ব্যাপারটি নিয়ে আসা। ধরুন, হুট করে কাছে টেনে নিয়ে আগ্রাসী চুমু খেলেন, বা জোর করে জাপটে ধরে আদর করা শুরু করলেন। অনেক নারী মুখে না না বললেও আসলে ব্যাপারটি উপভোগ করেন।

মেয়েদের পছন্দ রাফ সেক্স
২) ব্যথা এবং আনন্দ পাশপাশি চলে। তবে কখনোই খুব বেশি ব্যথা দিতে যাবেন না। এতে যৌন উত্তেজনা নষ্ট হয়ে যাবে। রাফ সেক্সের ক্ষেত্রে আস্তে আস্তে বাড়াতে হয় আদরের তীব্রতা। আদরের সময় নিতম্বে হালকা চাপড়ে দেয়াটা মিলনের সময় পরিণত হতে পারে জোরে খামচে দেয়া বা আরও প্রবল কিছুতে। নিতম্বে আঘাত করার বিষয়টিও অনেক নারী ভালোবাসেন।

৩) লাভ বাইট বা কামড়ে দাগ ফেলে দেয়ার ব্যাপারটিও রাফ সেক্সে অপরিহার্য। স্পর্শ কাতর স্থানগুলোতে হালকা চুম্বন দিয়ে শুরু করুন। আস্তে আস্তে বাড়ান আদরের তীব্রতা। কানের লতি, ঘাড়, স্তন এসব স্থানে পরিমিত কামড় নারীরা উপভোগ করেন।

জেনে নিন রাফ সেক্স মেয়েরা সবচেয়ে বেশি পছন্দ করে !

৪) তার দুটি হাত নিজে ধরে রাখুন, তারপর ইচ্ছেমত আদর করুন। যৌন মিলনের সময়েও এমন করতে পারেন। এটাও নারীরা উপভোগ করেন। সাথে হালকা চুল টেনে দেয়া, গালে কামড়ে দেয়া, তাঁকে আপনি কি প্রবল ভাবে কামনা করছেন সেটি বুঝিয়ে দেয়াও দারুণ উপভোগ্য।

৫) রাফ সেক্সকে আনন্দময় করতে তুলতে নানান রকম উপাদানেরও ব্যবহার করা যেতে পারে। যেমন নিজেদের ফ্যান্টাসি অনুজায়ী কস্টিউম পরা, হ্যান্ডকাফ ব্যবহার করা, ছোট চাবুক, পোল ড্যান্স করার পোল কিংবা আপনার পছন্দের যে কোন কিছু। এটা নিজের ফ্যান্টাসিকে এঞ্জয় করার ব্যাপার।

৬) একটা বিষয় মনে রাখবেন, রাফ সেক্স মানে এই নয় যে পরস্পরকে সহন ক্ষমতার বাইরে ব্যথা দেয়া। সঙ্গী কতটুকু সইতে পারবেন, সেটা মাথায় রাখুন। সেই হিসাবেই ধাপে ধাপে অগ্রসর হন। একবারে খুব বেশি আগ্রাসী হয়ে যাবেন না।

৭) নানা রকমের সেক্স টয়ও ব্যবহার করতে পারেন রাফ সেক্সকে আনন্দময় করে তুলতে।

মেয়েদের পছন্দ রাফ সেক্স
২) ব্যথা এবং আনন্দ পাশপাশি চলে। তবে কখনোই খুব বেশি ব্যথা দিতে যাবেন না। এতে যৌন উত্তেজনা নষ্ট হয়ে যাবে। রাফ সেক্সের ক্ষেত্রে আস্তে আস্তে বাড়াতে হয় আদরের তীব্রতা। আদরের সময় নিতম্বে হালকা চাপড়ে দেয়াটা মিলনের সময় পরিণত হতে পারে জোরে খামচে দেয়া বা আরও প্রবল কিছুতে। নিতম্বে আঘাত করার বিষয়টিও অনেক নারী ভালোবাসেন।

৩) লাভ বাইট বা কামড়ে দাগ ফেলে দেয়ার ব্যাপারটিও রাফ সেক্সে অপরিহার্য। স্পর্শ কাতর স্থানগুলোতে হালকা চুম্বন দিয়ে শুরু করুন। আস্তে আস্তে বাড়ান আদরের তীব্রতা। কানের লতি, ঘাড়, স্তন এসব স্থানে পরিমিত কামড় নারীরা উপভোগ করেন।

জেনে নিন রাফ সেক্স মেয়েরা সবচেয়ে বেশি পছন্দ করে !

৪) তার দুটি হাত নিজে ধরে রাখুন, তারপর ইচ্ছেমত আদর করুন। যৌন মিলনের সময়েও এমন করতে পারেন। এটাও নারীরা উপভোগ করেন। সাথে হালকা চুল টেনে দেয়া, গালে কামড়ে দেয়া, তাঁকে আপনি কি প্রবল ভাবে কামনা করছেন সেটি বুঝিয়ে দেয়াও দারুণ উপভোগ্য।

৫) রাফ সেক্সকে আনন্দময় করতে তুলতে নানান রকম উপাদানেরও ব্যবহার করা যেতে পারে। যেমন নিজেদের ফ্যান্টাসি অনুজায়ী কস্টিউম পরা, হ্যান্ডকাফ ব্যবহার করা, ছোট চাবুক, পোল ড্যান্স করার পোল কিংবা আপনার পছন্দের যে কোন কিছু। এটা নিজের ফ্যান্টাসিকে এঞ্জয় করার ব্যাপার।

৬) একটা বিষয় মনে রাখবেন, রাফ সেক্স মানে এই নয় যে পরস্পরকে সহন ক্ষমতার বাইরে ব্যথা দেয়া। সঙ্গী কতটুকু সইতে পারবেন, সেটা মাথায় রাখুন। সেই হিসাবেই ধাপে ধাপে অগ্রসর হন। একবারে খুব বেশি আগ্রাসী হয়ে যাবেন না।

৭) নানা রকমের সেক্স টয়ও ব্যবহার করতে পারেন রাফ সেক্সকে আনন্দময় করে তুলতে।

মেয়েদের পছন্দ রাফ সেক্স
২) ব্যথা এবং আনন্দ পাশপাশি চলে। তবে কখনোই খুব বেশি ব্যথা দিতে যাবেন না। এতে যৌন উত্তেজনা নষ্ট হয়ে যাবে। রাফ সেক্সের ক্ষেত্রে আস্তে আস্তে বাড়াতে হয় আদরের তীব্রতা। আদরের সময় নিতম্বে হালকা চাপড়ে দেয়াটা মিলনের সময় পরিণত হতে পারে জোরে খামচে দেয়া বা আরও প্রবল কিছুতে। নিতম্বে আঘাত করার বিষয়টিও অনেক নারী ভালোবাসেন।

৩) লাভ বাইট বা কামড়ে দাগ ফেলে দেয়ার ব্যাপারটিও রাফ সেক্সে অপরিহার্য। স্পর্শ কাতর স্থানগুলোতে হালকা চুম্বন দিয়ে শুরু করুন। আস্তে আস্তে বাড়ান আদরের তীব্রতা। কানের লতি, ঘাড়, স্তন এসব স্থানে পরিমিত কামড় নারীরা উপভোগ করেন।

জেনে নিন রাফ সেক্স মেয়েরা সবচেয়ে বেশি পছন্দ করে !

৪) তার দুটি হাত নিজে ধরে রাখুন, তারপর ইচ্ছেমত আদর করুন। যৌন মিলনের সময়েও এমন করতে পারেন। এটাও নারীরা উপভোগ করেন। সাথে হালকা চুল টেনে দেয়া, গালে কামড়ে দেয়া, তাঁকে আপনি কি প্রবল ভাবে কামনা করছেন সেটি বুঝিয়ে দেয়াও দারুণ উপভোগ্য।

৫) রাফ সেক্সকে আনন্দময় করতে তুলতে নানান রকম উপাদানেরও ব্যবহার করা যেতে পারে। যেমন নিজেদের ফ্যান্টাসি অনুজায়ী কস্টিউম পরা, হ্যান্ডকাফ ব্যবহার করা, ছোট চাবুক, পোল ড্যান্স করার পোল কিংবা আপনার পছন্দের যে কোন কিছু। এটা নিজের ফ্যান্টাসিকে এঞ্জয় করার ব্যাপার।

৬) একটা বিষয় মনে রাখবেন, রাফ সেক্স মানে এই নয় যে পরস্পরকে সহন ক্ষমতার বাইরে ব্যথা দেয়া। সঙ্গী কতটুকু সইতে পারবেন, সেটা মাথায় রাখুন। সেই হিসাবেই ধাপে ধাপে অগ্রসর হন। একবারে খুব বেশি আগ্রাসী হয়ে যাবেন না।

৭) নানা রকমের সেক্স টয়ও ব্যবহার করতে পারেন রাফ সেক্সকে আনন্দময় করে তুলতে।

মেয়েদের পছন্দ রাফ সেক্স
২) ব্যথা এবং আনন্দ পাশপাশি চলে। তবে কখনোই খুব বেশি ব্যথা দিতে যাবেন না। এতে যৌন উত্তেজনা নষ্ট হয়ে যাবে। রাফ সেক্সের ক্ষেত্রে আস্তে আস্তে বাড়াতে হয় আদরের তীব্রতা। আদরের সময় নিতম্বে হালকা চাপড়ে দেয়াটা মিলনের সময় পরিণত হতে পারে জোরে খামচে দেয়া বা আরও প্রবল কিছুতে। নিতম্বে আঘাত করার বিষয়টিও অনেক নারী ভালোবাসেন।

৩) লাভ বাইট বা কামড়ে দাগ ফেলে দেয়ার ব্যাপারটিও রাফ সেক্সে অপরিহার্য। স্পর্শ কাতর স্থানগুলোতে হালকা চুম্বন দিয়ে শুরু করুন। আস্তে আস্তে বাড়ান আদরের তীব্রতা। কানের লতি, ঘাড়, স্তন এসব স্থানে পরিমিত কামড় নারীরা উপভোগ করেন।

জেনে নিন রাফ সেক্স মেয়েরা সবচেয়ে বেশি পছন্দ করে !

৪) তার দুটি হাত নিজে ধরে রাখুন, তারপর ইচ্ছেমত আদর করুন। যৌন মিলনের সময়েও এমন করতে পারেন। এটাও নারীরা উপভোগ করেন। সাথে হালকা চুল টেনে দেয়া, গালে কামড়ে দেয়া, তাঁকে আপনি কি প্রবল ভাবে কামনা করছেন সেটি বুঝিয়ে দেয়াও দারুণ উপভোগ্য।

পড়ুন ফেসিয়াল এর জন্য ব্যবহার করুন ফ্রুট
৫) রাফ সেক্সকে আনন্দময় করতে তুলতে নানান রকম উপাদানেরও ব্যবহার করা যেতে পারে। যেমন নিজেদের ফ্যান্টাসি অনুজায়ী কস্টিউম পরা, হ্যান্ডকাফ ব্যবহার করা, ছোট চাবুক, পোল ড্যান্স করার পোল কিংবা আপনার পছন্দের যে কোন কিছু। এটা নিজের ফ্যান্টাসিকে এঞ্জয় করার ব্যাপার।

৬) একটা বিষয় মনে রাখবেন, রাফ সেক্স মানে এই নয় যে পরস্পরকে সহন ক্ষমতার বাইরে ব্যথা দেয়া। সঙ্গী কতটুকু সইতে পারবেন, সেটা মাথায় রাখুন। সেই হিসাবেই ধাপে ধাপে অগ্রসর হন। একবারে খুব বেশি আগ্রাসী হয়ে যাবেন না।

৭) নানা রকমের সেক্স টয়ও ব্যবহার করতে পারেন রাফ সেক্সকে আনন্দময় করে তুলতে।

মেয়েদের পছন্দ রাফ সেক্স
২) ব্যথা এবং আনন্দ পাশপাশি চলে। তবে কখনোই খুব বেশি ব্যথা দিতে যাবেন না। এতে যৌন উত্তেজনা নষ্ট হয়ে যাবে। রাফ সেক্সের ক্ষেত্রে আস্তে আস্তে বাড়াতে হয় আদরের তীব্রতা। আদরের সময় নিতম্বে হালকা চাপড়ে দেয়াটা মিলনের সময় পরিণত হতে পারে জোরে খামচে দেয়া বা আরও প্রবল কিছুতে। নিতম্বে আঘাত করার বিষয়টিও অনেক নারী ভালোবাসেন।

৩) লাভ বাইট বা কামড়ে দাগ ফেলে দেয়ার ব্যাপারটিও রাফ সেক্সে অপরিহার্য। স্পর্শ কাতর স্থানগুলোতে হালকা চুম্বন দিয়ে শুরু করুন। আস্তে আস্তে বাড়ান আদরের তীব্রতা। কানের লতি, ঘাড়, স্তন এসব স্থানে পরিমিত কামড় নারীরা উপভোগ করেন।

জেনে নিন রাফ সেক্স মেয়েরা সবচেয়ে বেশি পছন্দ করে !

৪) তার দুটি হাত নিজে ধরে রাখুন, তারপর ইচ্ছেমত আদর করুন। যৌন মিলনের সময়েও এমন করতে পারেন। এটাও নারীরা উপভোগ করেন। সাথে হালকা চুল টেনে দেয়া, গালে কামড়ে দেয়া, তাঁকে আপনি কি প্রবল ভাবে কামনা করছেন সেটি বুঝিয়ে দেয়াও দারুণ উপভোগ্য।

পড়ুন ফেসিয়াল এর জন্য ব্যবহার করুন ফ্রুট
৫) রাফ সেক্সকে আনন্দময় করতে তুলতে নানান রকম উপাদানেরও ব্যবহার করা যেতে পারে। যেমন নিজেদের ফ্যান্টাসি অনুজায়ী কস্টিউম পরা, হ্যান্ডকাফ ব্যবহার করা, ছোট চাবুক, পোল ড্যান্স করার পোল কিংবা আপনার পছন্দের যে কোন কিছু। এটা নিজের ফ্যান্টাসিকে এঞ্জয় করার ব্যাপার।

৬) একটা বিষয় মনে রাখবেন, রাফ সেক্স মানে এই নয় যে পরস্পরকে সহন ক্ষমতার বাইরে ব্যথা দেয়া। সঙ্গী কতটুকু সইতে পারবেন, সেটা মাথায় রাখুন। সেই হিসাবেই ধাপে ধাপে অগ্রসর হন। একবারে খুব বেশি আগ্রাসী হয়ে যাবেন না।

৭) নানা রকমের সেক্স টয়ও ব্যবহার করতে পারেন রাফ সেক্সকে আনন্দময় করে তুলতে।

মেয়েদের পছন্দ রাফ সেক্স
২) ব্যথা এবং আনন্দ পাশপাশি চলে। তবে কখনোই খুব বেশি ব্যথা দিতে যাবেন না। এতে যৌন উত্তেজনা নষ্ট হয়ে যাবে। রাফ সেক্সের ক্ষেত্রে আস্তে আস্তে বাড়াতে হয় আদরের তীব্রতা। আদরের সময় নিতম্বে হালকা চাপড়ে দেয়াটা মিলনের সময় পরিণত হতে পারে জোরে খামচে দেয়া বা আরও প্রবল কিছুতে। নিতম্বে আঘাত করার বিষয়টিও অনেক নারী ভালোবাসেন।

৩) লাভ বাইট বা কামড়ে দাগ ফেলে দেয়ার ব্যাপারটিও রাফ সেক্সে অপরিহার্য। স্পর্শ কাতর স্থানগুলোতে হালকা চুম্বন দিয়ে শুরু করুন। আস্তে আস্তে বাড়ান আদরের তীব্রতা। কানের লতি, ঘাড়, স্তন এসব স্থানে পরিমিত কামড় নারীরা উপভোগ করেন।

জেনে নিন রাফ সেক্স মেয়েরা সবচেয়ে বেশি পছন্দ করে !

৪) তার দুটি হাত নিজে ধরে রাখুন, তারপর ইচ্ছেমত আদর করুন। যৌন মিলনের সময়েও এমন করতে পারেন। এটাও নারীরা উপভোগ করেন। সাথে হালকা চুল টেনে দেয়া, গালে কামড়ে দেয়া, তাঁকে আপনি কি প্রবল ভাবে কামনা করছেন সেটি বুঝিয়ে দেয়াও দারুণ উপভোগ্য।

৫) রাফ সেক্সকে আনন্দময় করতে তুলতে নানান রকম উপাদানেরও ব্যবহার করা যেতে পারে। যেমন নিজেদের ফ্যান্টাসি অনুজায়ী কস্টিউম পরা, হ্যান্ডকাফ ব্যবহার করা, ছোট চাবুক, পোল ড্যান্স করার পোল কিংবা আপনার পছন্দের যে কোন কিছু। এটা নিজের ফ্যান্টাসিকে এঞ্জয় করার ব্যাপার।

৬) একটা বিষয় মনে রাখবেন, রাফ সেক্স মানে এই নয় যে পরস্পরকে সহন ক্ষমতার বাইরে ব্যথা দেয়া। সঙ্গী কতটুকু সইতে পারবেন, সেটা মাথায় রাখুন। সেই হিসাবেই ধাপে ধাপে অগ্রসর হন। একবারে খুব বেশি আগ্রাসী হয়ে যাবেন না।

৭) নানা রকমের সেক্স টয়ও ব্যবহার করতে পারেন রাফ সেক্সকে আনন্দময় করে তুলতে।

মেয়েদের পছন্দ রাফ সেক্স
২) ব্যথা এবং আনন্দ পাশপাশি চলে। তবে কখনোই খুব বেশি ব্যথা দিতে যাবেন না। এতে যৌন উত্তেজনা নষ্ট হয়ে যাবে। রাফ সেক্সের ক্ষেত্রে আস্তে আস্তে বাড়াতে হয় আদরের তীব্রতা। আদরের সময় নিতম্বে হালকা চাপড়ে দেয়াটা মিলনের সময় পরিণত হতে পারে জোরে খামচে দেয়া বা আরও প্রবল কিছুতে। নিতম্বে আঘাত করার বিষয়টিও অনেক নারী ভালোবাসেন।

৩) লাভ বাইট বা কামড়ে দাগ ফেলে দেয়ার ব্যাপারটিও রাফ সেক্সে অপরিহার্য। স্পর্শ কাতর স্থানগুলোতে হালকা চুম্বন দিয়ে শুরু করুন। আস্তে আস্তে বাড়ান আদরের তীব্রতা। কানের লতি, ঘাড়, স্তন এসব স্থানে পরিমিত কামড় নারীরা উপভোগ করেন।

জেনে নিন রাফ সেক্স মেয়েরা সবচেয়ে বেশি পছন্দ করে !

৪) তার দুটি হাত নিজে ধরে রাখুন, তারপর ইচ্ছেমত আদর করুন। যৌন মিলনের সময়েও এমন করতে পারেন। এটাও নারীরা উপভোগ করেন। সাথে হালকা চুল টেনে দেয়া, গালে কামড়ে দেয়া, তাঁকে আপনি কি প্রবল ভাবে কামনা করছেন সেটি বুঝিয়ে দেয়াও দারুণ উপভোগ্য।

৫) রাফ সেক্সকে আনন্দময় করতে তুলতে নানান রকম উপাদানেরও ব্যবহার করা যেতে পারে। যেমন নিজেদের ফ্যান্টাসি অনুজায়ী কস্টিউম পরা, হ্যান্ডকাফ ব্যবহার করা, ছোট চাবুক, পোল ড্যান্স করার পোল কিংবা আপনার পছন্দের যে কোন কিছু। এটা নিজের ফ্যান্টাসিকে এঞ্জয় করার ব্যাপার।

৬) একটা বিষয় মনে রাখবেন, রাফ সেক্স মানে এই নয় যে পরস্পরকে সহন ক্ষমতার বাইরে ব্যথা দেয়া। সঙ্গী কতটুকু সইতে পারবেন, সেটা মাথায় রাখুন। সেই হিসাবেই ধাপে ধাপে অগ্রসর হন। একবারে খুব বেশি আগ্রাসী হয়ে যাবেন না।

৭) নানা রকমের সেক্স টয়ও ব্যবহার করতে পারেন রাফ সেক্সকে আনন্দময় করে তুলতে।

শেয়ার করতে ভুলবেন না

Check Also

যৌন সমস্যা

যেসব যৌন সমস্যা অবহেলা করা ঠিক নয় জেনে নিন

আশা করি সবাই ভাল আছেন। আজ আপনাদের মাঝে অরেকটি আর্টিকেল নিয়ে হাজির হলাম। আজ আপনাদের ...

Leave a Reply

Your email address will not be published.