Monday , July 4 2022
Home / খেলাধুলা / সাত বছর পর ঘরের মাঠে সিরিজ হারল ইংল্যান্ড।

সাত বছর পর ঘরের মাঠে সিরিজ হারল ইংল্যান্ড।

ইংল্যান্ড দল উড়ছিল। শ্রীলঙ্কার মাঠে লঙ্কানদের ধবলধোলাই করে ভারতে গিয়েছিল ইংল্যান্ড। ফেব্রুয়ারিতে ভারত মাঠে সফরের শুরুটা হয়েছিল দুর্দান্ত। অস্ট্রেলিয়া সফর করে আসা আত্মবিশ্বাসী ভারতীয়দের চেন্নাইয়ে মাঠে দাপটের সঙ্গে হারিয়ে দিয়েছিল ইংল্যান্ড।

মাঠে
সাত বছর পর ঘরের মাঠে সিরিজ হারল ইংল্যান্ড।

সাত বছর পর ঘরের মাঠে সিরিজ হারল ইংলিশরা।

বহুদিন পর ভারতে আরেকটি সিরিজ জয়ের স্বপ্ন জেগে উঠেছিল ইংল্যান্ডে এর। সে সঙ্গে টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালে ওঠার আশাও।সিরিজের বাদবাকি সময়টা মাথা কুটে মরেছে ইংল্যান্ড। পরের তিন ম্যাচে পাত্তাই পায়নি দলটি। চেন্নাইয়ে পরের টেস্টে হেরেছে ৩২৭ রানে। আহমেদাবাদের দুই টেস্টের হার ১০ উইকেট ও ইনিংস ব্যবধানের। ঘরের মাঠের টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ ফাইনালে তাই অতিথিই হয়ে থাকতে হলো ইংল্যান্ডকে। ১৮ জুনের সে ম্যাচে নিউজিল্যান্ডের প্রতিপক্ষ হয়েছে ভারত।

বহু কাঙ্ক্ষিত সে ফাইনালের আগে নিউজিল্যান্ড নিজেদের শক্তি পরখ করে দেখল ইংল্যান্ডের সঙ্গেই। এজবাস্টনে স্বাগতিক ইংল্যান্ডকে ৮ উইকেটে হারিয়ে দিয়েছে নিউজিল্যান্ড। এতে সাত বছর পর ঘরের মাঠে সিরিজ হারল ইংলিশরা।

ম্যাচটা তৃতীয় দিনেই শেষ হয়ে যেতে পারত। গতকাল ৮৫ রানে পিছিয়ে থেকে দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করতে নামা ইংল্যান্ড ৫৮ রানে ৫ উইকেট হারিয়ে ফেলেছিল। আর ১৮ রান তুলতে ২ উইকেট হারিয়ে ফেলার পর তো ইনিংস ব্যবধানে হারার শঙ্কাও জেগেছিল। মার্ক উড ও ওলি স্টোন মিলে ৪৪ রানের জুটি না গড়লে কালই হয়তো ম্যাচ শেষ হয়ে যেত। পরে ৯ উইকেটে ১২২ রান তুলে দিন শেষ করেছিল স্বাগতিক দল।

৩৭ রানের লিড যতটা সম্ভব বাড়িয়ে নেওয়ার চিন্তা করেছিল ইংল্যান্ড। কিন্তু দিনের প্রথম বলেই সব শেষ। ট্রেন্ট বোল্টের বলে গতকাল এক প্রান্ত ধরে রাখা স্টোন উইকেটের পেছনে ক্যাচ দিয়ে ফিরলেন। ৩৮ রানের লক্ষ্য পেল নিউজিল্যান্ড। এত ছোট লক্ষ্য পেরোতেও কষ্ট হয়েছে সফরকারীদের। ফর্মে থাকা ডেভন কনওয়েকে (৩) দ্বিতীয় ওভারেই ফিরিয়ে দিয়েছেন স্টুয়ার্ট ব্রড। একটু পর স্টোনের বলে আউট উইল ইয়ং (8)। টম ল্যাথাম (২৩ *) ও রস টেলর (০ *) মিলে প্রথম ঘণ্টাতেই ম্যাচ শেষ করে দিয়েছেন।

দুই ইনিংস মিলিয়ে বোল্ট ও ম্যাট হেনরি ৬ উইকেট পেলেও দ্বিতীয় ইনিংসে ইংল্যান্ডের টপ অর্ডারের তিনজনকেই আউট করায় ম্যাচ সেরা হয়েছে হেনরি।

সিরিজের প্রথম টেস্ট ড্র হয়েছিল দুই দলের মধ্যে। দ্বিতীয় টেস্টে হেরে যাওয়ায় ঘরের মাঠে সিরিজ না হারার রেকর্ডটা ১৪-তেই আটকা পড়ল ইংল্যান্ডের। ঘরের মাঠে সর্বশেষ ইংল্যান্ডকে হারাতে পেরেছিল শ্রীলঙ্কা। ২০১৪ সালের সে সিরিজও দুই ম্যাচের ছিল।

মোবাইল দ্রুত চার্জ করার টিপস জানলে অবাক হবেন?

https://www.latestbangla.com/archives/3012

ফোন পানিতে ভিজলে যা করবেন জেনে নিন এক ঝলকে?

https://www.latestbangla.com/archives/3009

মোবাইল ফোনের ব্যাটারির যত্ন জেনে নিন

https://www.latestbangla.com/archives/3006

সুস্থ থাকুন, নিজেকে এবং পরিবারকে ভালোবাসুন। আমাদের লেখা আপনার কেমন লাগছে ও আপনার যদি কোনো প্রশ্ন থাকে তবে নিচে কমেন্ট করে জানান। আপনার বন্ধুদের কাছে পোস্টটি পৌঁছে দিতে দয়া করে শেয়ার করুন। পুরো পোস্টটি পড়ার জন্য আপনাকে অনেক ধন্যবাদ। প্রতিদিনের আপডেট পেতে আমাদের Facebook লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন।
ধন্যবাদ।

 

শেয়ার করতে ভুলবেন না

Check Also

বিয়ের এক

বিয়ের এক সপ্তাহ পরই মৃত্যু আরবের ফুটবলারের

বিয়ের এক সপ্তাহ পরই মৃত্যু আরবের ফুটবলারের ২২ ডিসেম্বর মাঠেই এক ফুটবলারের মৃত্যুর খবর এসেছিল। ...

Leave a Reply

Your email address will not be published.