Thursday , July 7 2022
Home / রুপচর্চা / রূপচর্চার ১০টি কার্যকারী পরামর্শ

রূপচর্চার ১০টি কার্যকারী পরামর্শ

প্রাকৃতিক নানা উপাদান ও কিছু নিয়ম ত্বকের সুরক্ষাতে ভীষণই গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে । শুধু মেয়েরা নয়, ছেলেরাও এই রূপচর্চা টিপস গুলো অনুসরণ করে সুফল পেতে পারেন ।

রূপচর্চার
রূপচর্চার ১০টি কার্যকারী পরামর্শ

রূপচর্চার ১০টি কার্যকারী পরামর্শ

১. আপনি যদি অপর্যাপ্ত পরিমাণে ঘুমান তাহলে আপনার ত্বক ফ্যাকাসে, নিস্তেজ এবং শুষ্ক দেখাবে । তাই আপনাকে প্রতি রাতে অবশ্যই কমপক্ষে সাত থেকে আট ঘন্টা ঘুমাতে হবে । এটা আপনার ত্বকের জন্য একটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ বিষয় ।

২. পানি শরীরের জন্য একটি অপরিহার্য উপাদান ।তাই পরিমাণ মতো পানি পান করুন । এটি আপনার ত্বককে সারাদিন প্রাণবন্ত করে রাখতে সাহায্য করবে ।

৩. আপনার খাদ্য তালিকায় ভিটামিন সমৃদ্ধ খাবার রাখুন । এটা আপনার ত্বককে প্রভাবিত করে । পরিমিত পরিমাণে ভিটামিন এ এবং ই সমৃদ্ধ ফল এবং শাক-সবজি নিয়মিত গ্রহণ করুন । চর্বি ও তৈলযুক্ত খাবার গ্রহণ থেকে বিরত থাকুন, এটা আপনার ত্বকে ব্রণ সৃষ্টি করতে পারে ।

৪. বডি লোশন লাগানোর সবচেয়ে উৎকৃষ্ট সময় হলো গোসলের পর পর । কেননা এ সময় স্কিন সহজে লোশন শোষণ করে  নেয় ।

৫. এক গ্লাস পানির মধ্যে বরফ দিয়ে ওর মধ্যে মধু, লেবু এবং পুদিনা পাতা দিন শরবত করে নিন । সেই পানিটা পান করুন । এতে ত্বকের চমক বাড়বে ।

৬. সূর্যের অতি বেগুনি (UV)রশ্মি ত্বক পুড়িয়ে ফেলে এবং স্ক্রিন ক্যান্সারের সম্ভাবনা বাড়িয়ে দেয় ।তাই রোদে বের হওয়ার ৩০ মিনিট পূর্বে সানস স্ক্রীম ত্বকে প্রয়োগ করতে হবে অথবা অল্প শসার রস, অল্প গ্লিসারিন ও অল্প গোলাপ জলের মিশ্রণ রোদে বের হওয়ার আগে ও পরে ব্যবহার করতে পারেন, মিশ্রণটি পোড়া ত্বকের জন্য উপকারী ও ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি করে ।

৭. শরীরের মসৃণতা ধরে রাখতে প্রতিদিন একবার অত্যন্ত একবার সকাল অথবা রাতে ভাল মানের স্ক্রিন ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করতে হবে ।

৮. সালফেট ফ্রি শ্যাম্পু ব্যবহার করুন । কেননা সালফেট চুলকে রাফ করে দেয় এবং চুলের কিউটিক্যালকে নষ্ট করে দেয় ।৯. সবসময় পরিষ্কার মেকআপ ব্রাশ নেওয়ার চেষ্টা করবেন । এত মুখে ব্যাকটেরিয়ার আক্রমণে ব্রণ হওয়ার আশঙ্কা কমে যাবে । বছরে অন্তত তিনবার বা ৩/৪ মাস পর পর আইলাইনার এবং মাশকরা বদলে ফেলবেন ।

১০. অনেকের চোখের নিচের কালি নিয়মিত সঙ্গী। চোখের নিচে কালি পড়ে অতিরিক্ত চিন্তা, রাত জাগার কারণে । চোখের নিচের কালি থেকে মুক্তি পেতে রাতে ঘুমানোর আগে শসা বা আলুর রস চোখের নিচে লাগিয়ে রাখুন । সকালে উঠে ধুয়ে   ফেলুন।

 

সুস্থ থাকুন, নিজেকে এবং পরিবারকে ভালোবাসুন। আমাদের লেখা আপনার কেমন লাগছে আপনার যদি কোনো প্রশ্ন থাকে তবে নিচে কমেন্ট করে জানান। আপনার বন্ধুদের কাছে পোস্টটি পৌঁছে দিতে দয়া করে শেয়ার করুন। পুরো পোস্টটি পড়ার জন্য আপনাকে অনেক ধন্যবাদ। প্রতিদিনের আপডেট পেতে আমাদের Facebook লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন।
ধন্যবাদ।

শেয়ার করতে ভুলবেন না

Check Also

ক্র্যানবেরী

রূপচর্চায় ক্র্যানবেরী গুনাগুন জানুন?

আশা করি সবাই ভাল আছেন। আজ আপনাদের মাঝে অরেকটি আর্টিকেল নিয়ে হাজির হলাম। আজ আপনাদের ...

Leave a Reply

Your email address will not be published.